ঢাকা ১১:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নকলা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

Spread the love

শেরপুরের নকলা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবু হামযা কনক ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে লাকী আক্তার বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২১ মে) ৬ষ্ঠ ধাপে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও কর্তৃক ঘোষিত ফলাফলে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ, দোয়াত-কলম প্রতীকে ২০ হাজার ৬৫৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ মোকশেদুল হক শিবলু, কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১৯ হাজার ২১৩ ভোট।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা ছাত্র লীগের আহবায়ক আবু হামযা কনক চশমা প্রতীকে ৩১ হাজার ১৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোশাররফ হোসেন সরকার বাবু পেয়েছেন ২৭ হাজার ১৪২ ভোট।

চেয়ারম্যান পদে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, আনারস প্রতীকে ১৬ হাজার ১০৭ ভোট, উপজেলা পরিষদের দুই বারের ভাইস চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সারোয়ার আলম তালুকদার, ঘোড়া প্রতীকে ১৩ হাজার ১৬ ভোট ও উপজেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান শাহ্ মোঃ বোরহান উদ্দিন মোটর সাইকেল প্রতীকে ১১ হাজার ৬৯৫ ভোট পেয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ মামুন হোসেন, উড়োজাহাজ প্রতীকে ১১ হাজার ২৫৭ ভোট; ৭নং টালকী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন আকন্দ, তালা প্রতীকে ৫ হাজার ৪৫১ ভোট, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রেজাউল করিম, টিউবওয়েল প্রতীকে ৪ হাজার ৫৬১ ভোট পেয়েছেন।

আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতীকে ৬১২৬৯ ভোট পেয়ে লাকী আক্তার নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ফরিদা ইয়াসমিন হাঁস প্রতিকে পেয়েছেন ৮১৩৪ ভোট।

জনপ্রিয় সংবাদ

নকলা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

আপডেট সময় : ০৬:১৮:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
Spread the love

শেরপুরের নকলা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবু হামযা কনক ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে লাকী আক্তার বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২১ মে) ৬ষ্ঠ ধাপে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও কর্তৃক ঘোষিত ফলাফলে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ, দোয়াত-কলম প্রতীকে ২০ হাজার ৬৫৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ মোকশেদুল হক শিবলু, কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১৯ হাজার ২১৩ ভোট।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা ছাত্র লীগের আহবায়ক আবু হামযা কনক চশমা প্রতীকে ৩১ হাজার ১৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোশাররফ হোসেন সরকার বাবু পেয়েছেন ২৭ হাজার ১৪২ ভোট।

চেয়ারম্যান পদে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, আনারস প্রতীকে ১৬ হাজার ১০৭ ভোট, উপজেলা পরিষদের দুই বারের ভাইস চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সারোয়ার আলম তালুকদার, ঘোড়া প্রতীকে ১৩ হাজার ১৬ ভোট ও উপজেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান শাহ্ মোঃ বোরহান উদ্দিন মোটর সাইকেল প্রতীকে ১১ হাজার ৬৯৫ ভোট পেয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ মামুন হোসেন, উড়োজাহাজ প্রতীকে ১১ হাজার ২৫৭ ভোট; ৭নং টালকী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন আকন্দ, তালা প্রতীকে ৫ হাজার ৪৫১ ভোট, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রেজাউল করিম, টিউবওয়েল প্রতীকে ৪ হাজার ৫৬১ ভোট পেয়েছেন।

আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতীকে ৬১২৬৯ ভোট পেয়ে লাকী আক্তার নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ফরিদা ইয়াসমিন হাঁস প্রতিকে পেয়েছেন ৮১৩৪ ভোট।