ঢাকা ০৬:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাগদাদে আইএসের হামলা, নিহত ৫

Spread the love

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে একটি গ্রামে সশস্ত্র গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে দেশটির পাঁচ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। সোমবার (১৪ মে) এক বিবৃতিতে স্থানীয় কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাতে মঙ্গলবার (১৪ মে) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

ইরাকি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সোমবার (১৩ মে) আইএস সদস্যরা মাতেবিজা নামে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি গ্রামের সালেহ উদ্দীন পোস্টে হামলা চালায়। এ সময় তাদের প্রতিহত করতে সংঘর্ষে জড়ায় সেনাবাহিনী। লড়াইয়ে এক কর্মকর্তাসহ ইরাকি সেনাবাহিনীর পাঁচজন সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ইরাক এবং সিরিয়ার এক বিশাল অংশ দখল করে ‘খিলাফত’ ঘোষণা করে আইএস। এরপর থেকে ইরাকের বিভিন্ন জায়গায় হামলা শুরু করে গোষ্ঠীটি।

২০১৭ সালে ইরাকে মার্কিন সামরিক জোটের নেতৃত্বাধীন ইরাক সেনাবাহিনী আইএস গোষ্ঠীকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়। তবে ২০১৯ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধীন কুর্দি বাহিনী সিরিয়ায় আইএস গোষ্ঠীকে হারাতে ব্যর্থ হয়। এরপর থেকে দেশটির প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল এবং মেরু অঞ্চলে এ জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্যরা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

জানুয়ারিতে জাতিসংঘ ইরাক এবং সিরিয়ার ওপর একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ইরাক এবং সিরিয়ায় আইএসের তিন থেকে পাঁচ হাজার সদস্য আছে বলে উল্লেখ করা হয় এতে।

জনপ্রিয় সংবাদ

বাগদাদে আইএসের হামলা, নিহত ৫

আপডেট সময় : ১১:১৫:৪৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪
Spread the love

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে একটি গ্রামে সশস্ত্র গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে দেশটির পাঁচ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। সোমবার (১৪ মে) এক বিবৃতিতে স্থানীয় কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাতে মঙ্গলবার (১৪ মে) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

ইরাকি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সোমবার (১৩ মে) আইএস সদস্যরা মাতেবিজা নামে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি গ্রামের সালেহ উদ্দীন পোস্টে হামলা চালায়। এ সময় তাদের প্রতিহত করতে সংঘর্ষে জড়ায় সেনাবাহিনী। লড়াইয়ে এক কর্মকর্তাসহ ইরাকি সেনাবাহিনীর পাঁচজন সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ইরাক এবং সিরিয়ার এক বিশাল অংশ দখল করে ‘খিলাফত’ ঘোষণা করে আইএস। এরপর থেকে ইরাকের বিভিন্ন জায়গায় হামলা শুরু করে গোষ্ঠীটি।

২০১৭ সালে ইরাকে মার্কিন সামরিক জোটের নেতৃত্বাধীন ইরাক সেনাবাহিনী আইএস গোষ্ঠীকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়। তবে ২০১৯ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধীন কুর্দি বাহিনী সিরিয়ায় আইএস গোষ্ঠীকে হারাতে ব্যর্থ হয়। এরপর থেকে দেশটির প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল এবং মেরু অঞ্চলে এ জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্যরা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

জানুয়ারিতে জাতিসংঘ ইরাক এবং সিরিয়ার ওপর একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ইরাক এবং সিরিয়ায় আইএসের তিন থেকে পাঁচ হাজার সদস্য আছে বলে উল্লেখ করা হয় এতে।