ঢাকা ০৬:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদা দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে আদালতে মামলা

Spread the love

পটুয়াখালীর মহিপুরে চাঁদা দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে ৯নং ধুলাসার ইউপির বাসিন্দা তোফাজ্জেল পাটোয়ারী সহ অজ্ঞাত আরো ৭জন ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে তোফাজ্জল পাটোয়ারীকে ১নং আসামী করে আদালতে একটি চাদাবাজী মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায় চর চাপলী মৌজার, বিএস জেল নং ৫১, ৮৩৯ খতিয়ানের ০.৮৬ একর জমির ক্রয়কৃত ও দলিল মূলে মালিক সানজিদা বেগম গং রা আসামীদের জমি পাশাপাশি হওয়ার তারা উক্ত জমি দখলের পায়তারা করে আসছে। জমির সীমানা প্রাচীর ভেঙে ১৭-১৮ শতক জমিতে বেআইনি ভাবে তারা মাটি কাটায় লিপ্ত থাকে, জমির মালিক বাধা দিলে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তোফাজ্জল এক অদৃশ্য শক্তির বলে এসব করেন। কথায় কথায় ভয় দেখান ডিসি কোর্টে কর্মরত জামাতা, ও নিকটতম এক সচিব আত্মীয়ের।

ইতোমধ্যেই তিনি পৃথক দুটি মামলায় এলাকায় ২২২ জনকে আসামী করে আদালতে মামলা।
মামলা থেকে খালাস পেতে হলে তাকে দিতে হবে মোটা অংকের টাকা।

ধুলাসার ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আজহার খলিফা জানান, তোফাজ্জল পাটোয়ারী জামাত শিবিরের দোসর তার কর্মকান্ডে এলাকার সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ।

অপর বাসিন্দা আবু হানিফ জানান তোফাজ্জল পাটোয়ারী আমাদের ক্রয়কৃত জমি দখল যেখানে আমাদের একটি বসত বাড়ি রয়েছে। সেটি অন্যায়ভাবে দখল করে আছেন।

এছাড়াও তার আপন ভাতিজা বাজারে একটি ঘর তুলতে গেলে তার কাছেও তিনি পঁচিশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। এছাড়া মসজিদের টাকা আত্মসাৎসহ এলাকায় তার নামে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে তোফাজ্জল পাটোয়ারী এসব অস্বীকার করে বসেন। মসজিদের টাকা আত্মসাতের বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন ভুলবশত আমার একাউন্টে টাকাটা চলে আসছে আমি পরে সেটা ফেরত দিয়ে দিছি।

জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদা দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে আদালতে মামলা

আপডেট সময় : ১০:৫৭:২৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
Spread the love

পটুয়াখালীর মহিপুরে চাঁদা দাবি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে ৯নং ধুলাসার ইউপির বাসিন্দা তোফাজ্জেল পাটোয়ারী সহ অজ্ঞাত আরো ৭জন ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে তোফাজ্জল পাটোয়ারীকে ১নং আসামী করে আদালতে একটি চাদাবাজী মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায় চর চাপলী মৌজার, বিএস জেল নং ৫১, ৮৩৯ খতিয়ানের ০.৮৬ একর জমির ক্রয়কৃত ও দলিল মূলে মালিক সানজিদা বেগম গং রা আসামীদের জমি পাশাপাশি হওয়ার তারা উক্ত জমি দখলের পায়তারা করে আসছে। জমির সীমানা প্রাচীর ভেঙে ১৭-১৮ শতক জমিতে বেআইনি ভাবে তারা মাটি কাটায় লিপ্ত থাকে, জমির মালিক বাধা দিলে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তোফাজ্জল এক অদৃশ্য শক্তির বলে এসব করেন। কথায় কথায় ভয় দেখান ডিসি কোর্টে কর্মরত জামাতা, ও নিকটতম এক সচিব আত্মীয়ের।

ইতোমধ্যেই তিনি পৃথক দুটি মামলায় এলাকায় ২২২ জনকে আসামী করে আদালতে মামলা।
মামলা থেকে খালাস পেতে হলে তাকে দিতে হবে মোটা অংকের টাকা।

ধুলাসার ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আজহার খলিফা জানান, তোফাজ্জল পাটোয়ারী জামাত শিবিরের দোসর তার কর্মকান্ডে এলাকার সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ।

অপর বাসিন্দা আবু হানিফ জানান তোফাজ্জল পাটোয়ারী আমাদের ক্রয়কৃত জমি দখল যেখানে আমাদের একটি বসত বাড়ি রয়েছে। সেটি অন্যায়ভাবে দখল করে আছেন।

এছাড়াও তার আপন ভাতিজা বাজারে একটি ঘর তুলতে গেলে তার কাছেও তিনি পঁচিশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। এছাড়া মসজিদের টাকা আত্মসাৎসহ এলাকায় তার নামে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে তোফাজ্জল পাটোয়ারী এসব অস্বীকার করে বসেন। মসজিদের টাকা আত্মসাতের বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন ভুলবশত আমার একাউন্টে টাকাটা চলে আসছে আমি পরে সেটা ফেরত দিয়ে দিছি।